UED Organization-এর উদ্যোগে করোনা মুক্তিতে কোরআন খতম

মো. মাসুদ আলম, জবি প্রতিনিধি :

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর আক্রমণে দিশেহারা পৃথিবী। বিশ্বের উন্নত ইউরোপের দেশগুলোও করোনা মহামারিতে লাশের মিছিল চলছে। যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশেও লাশের মিছিল চলছে। মনে হয় পৃথিবী মৃত্যুপরীতে রূপান্তরিত হচ্ছে। রোগটি ছোঁয়াচে হওয়ায় থামানো যাচ্ছে না কোনোভাবেই।

পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস যা কোনোভানেই ঠেকানো যাচ্ছে না।চেষ্টা চলছে প্রতিষেধক আবিষ্কারের। কিন্তু এখনো কার্যকর কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি।

বাংলাদেশেও গত ৮মার্চ প্রবেশ করে করোনা ভাইরাস।এরই মধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সরকারী সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। স্থগিত করা হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা,অঘোষিত লকডাউন চলছে সারাদেশে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে রেল যোগায়োগ,নৌ চলাচল, গণপরিবহণ সহ সবকিছুই।

বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ জন, মৃত্যুর সংখ্যা ৬জন এবং সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ২৬ জন। দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

করোনা নামক মহামারী থেকে মুক্তির জন্য UED-Organization একটি ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে।তাদের সদস্যরা মিলে ২৫ খতম কোরআন পড়ার উদ্যোগ নিয়েছে।তাদের সকল সদস্যদের মাঝে কোরআন-এর বিভিন্ন অংশ বণ্টন করে দেয়া হয় পড়ার জন্য।

/ সংগঠনের সভাপতি এইচএম আবু হানিফ বলেন, করোনা মহামারি থেকে মুক্তির জন্য আমরা একটি অভিনব কার্যক্রম গ্রহণ করেছি।আল্লাহর সাহায্য কামনায় আমরা সকল সদস্য মিলে ২৫ খতম কোরআন পড়ার উদ্যোগ নিয়েছি। আমাদের সকল সদস্যরা তাদের মাঝে বণ্টন করে দেয়া অংশ পড়া প্রায় শেষ করে ফেলেছে। আমরা আগামীকাল শুক্রবার দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করবো। আল্লাহর কাছে আমাদের মিনতি যেনো তিনি এই মহামারি থেকে সারাবিশ্বকে হেফাজত করেন। বিশেষ করে মুসলিম উম্মাহ ও প্রিয় মাতৃভুমিকে হেফাজত করেন।

সংগঠননের সেক্রেটারি ওবাইদুল্লাহ আহমদ হোসাইন বলেন, বৈশ্বিক এই মহামারি থেকে পরিত্রাণের কোনো কার্যকরী ঔষধ এখনো আবিষ্কার হয়নি। সচেতনতার পাশাপাশি মহান প্রভুর কাছে আমাদের মিনতি করা উচিত। সেই চিন্তাভাবনা থেকেই এই ব্যতিক্রমী কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

You might like

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়