চূড়ান্ত যৌন সুখানুভূতি ‘চেতনাহীন’ করে

লাইলস্টাইল ডেস্ক :

অনেকেই অনুভব করেন, যৌনমিলনের সময় চূড়ান্ত সুখানুভূতি লাভের প্রাক্কালে তারা সত্যিই নিজের ওপর ‘নিয়ন্ত্রণ হারান’। গবেষণায়ও দেখা গেছে, সে সময় মস্তিষ্কে যা ঘটে চলে তার সবচেয়ে সঠিক বিবরণটা এমনই।

জার্নাল সোসিওঅ্যাফেক্টিভ নিউরোসায়েন্স এবং সাইকোলজিতে প্রাকাশিত গত মাসের একটি নিবন্ধে নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নায়ুবিজ্ঞানী অ্যাডাম স্যাফ্রোন প্রস্তাব করেছেন, যৌন তৎপরতার ছন্দময় প্রকৃতি চেতনাহীন দশার জন্ম দেয়। যার ফলে ইন্দ্রিয়র পুরোপুরি শোষণ ঘটে এবং আত্মসেচতনতা লোপ পায়।

যৌন উদ্দীপনার ছন্দময়তা মস্তিষ্কের নিউরনগুলোকেও একই ছন্দে দোলায়িত করে। এর নাম ‘নিউরাল এন্টারটেইনমেন্ট’ বা স্নায়বিক বিনোদন। উদ্দীপনা যদি তীব্র হয় এবং যথেষ্ট সময় ধরে স্থিতিশীল থাকে তাহলে সমলয়ী তৎপরতা পুরো মস্তিষ্কজুড়ে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

এই সমলয়ী তৎপরতা কেন্দ্রীভূত মনোযোগ দশার সৃষ্টি করে। যে সময় স্বাভাবিক আত্মসচেতনতা লোপ পায়। যার ফলে ওই মুহূর্তে আমার নিজেদেরকে হারিয়ে ফেলি। যৌন অবলুপ্তির সময় আমার এমন এক ইন্দ্রিয় অভিনিবেশে প্রবেশ করি যা অভিজ্ঞতার এমন তীব্রতা গড়ে তুলতে পারে যা শীর্ষবিন্দু পৌঁছাতে সহায়ক হতে পারে।

স্নায়ুবিজ্ঞানের দৃষ্টিভঙ্গিগত অবস্থান থেকে দেখলে যৌনতা হতে পারে চেতনার একটি পরিবর্তিত অবস্থা। এমনকি ধ্যান চর্চার একটি রুপও হতে পারে।

যৌনসুখের অভিজ্ঞতাকে এভাবে সংজ্ঞায়িত করার বিষয়টি যৌনতাকে শুধু আকাঙ্ক্ষা, আনন্দ এবং উত্তেজনার ধারণা দিয়ে ব্যাখ্যা করা থেকে একদমই আলাদা। তবে একেবারে সামঞ্জস্যহীন নয়, বলেন স্নায়ুবিজ্ঞানী অ্যাডাম স্যাফ্রোন।

যৌনতাকে এভাবে দেখলে লোকে যৌন মিলনের বিষয়টিকে একটি অসাধারণ জিনিস হিসেবে বিবেচনা করবে। আর এর মধ্য দিয়ে তারা নিজেদের সঙ্গী বা সঙ্গিনীর সম্পর্কে আরো মহৎ মূল্যায়নে আগ্রহী হবেন। আর যৌনতা প্রতি অনাগ্রহ বা অনীহাও সৃষ্টি হবে না।

এই ধারণার সঙ্গে অরগাজম বা চূড়ান্ত যৌন সুখানুভূতির ধারণার মিল আছে। দেহের সবচেয়ে সংবেদনশীল ইন্দ্রিয়ে ছন্দময় উদ্দীপনার মাধ্যমে এর সৃষ্টি হয়। এ সময় মস্তিষ্ক নিজের ওপর সাময়িকের জন্য নিয়ন্ত্রণহারা হয়ে পড়ে।

এই উপায়ে যৌন তৎপরতার সঙ্গে সংগীত ও নাচের তুলনা হতে পারে। এই সবগুলোই ক্ষণিকের জন্য নিয়ন্ত্রণহারা হয়ে চেতনার এক পরিবর্তিত দশায় প্রবেশে সহায়ক হতে পারে।

প্রাচীন কিছু সংস্কৃতিতে নৃবিজ্ঞানীরা ছন্দময় ড্রাম বাদ্য, গাস গাওয়া, স্তব এবং নাচকে চেতনার ওই নিয়ন্ত্রণহারা দশায় প্রবেশে ব্যবহার করতে দেখেছেন।

সুতরাং যৌন জীবনকে আরো আনন্দময় করতে ছন্দময়তার প্রতি গভীর মনোযোগ দিলে তা বেশ কাজে লাগবে। যৌন তৎপরতার ছন্দময় দিকের প্রতি মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করলে তা যৌনতাকে আরো বেশি উপভোগ্য করতে সহায়ক হবে। আর এর মধ্য দিয়ে লোকে সে ধরনের ভালোবাসার জনই হয়ে উঠবেন যে ধরনের ভালোবাসার জন তারা হতে চান।

আমরা খবরের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, সঠিক সংবাদ পরিবেশনই আমাদের বৈশিষ্ট্য

আপডেট সময় : ০৬:৪১ পিএম

২৩ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি, সোমবার

 

You might like

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়