৪নং ওয়ার্ডকে আধুনিকায়ন করার পরিকল্পনায় বদ্ধপরিকর প্যানেল মেয়র আব্দুল মান্নান পরান

মো. মহিউদ্দিন :
আলোকিত সমাজ গঠনের অঙ্গিকার করে নির্বাচনের পূর্বে প্রার্থীরা ভোটারদের উদ্দেশ্য করে দিয়ে থাকেন বিভিন্ন পন্থায় উন্নয়নের অঙ্গিকার। নির্বাচন শেষে অনেকেই থাকেন মানুষের সেবা নিয়ে ব্যস্ত আবার অনেকে থাকেন আগের গোছানোর চিন্তায়। কিন্তু ফরিদগঞ্জ পৌরসভার-০৪ নং ওয়ার্ডের চিত্র অনেকটাই ভিন্ন। উন্নয়নের পাশাপাশি সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত ওয়ার্ড গড়ার ক্ষেত্রে স্থানীয়দের কাছে আইকন হয়েছেন কাউন্সিলর আব্দুল মান্নান পরান। শিক্ষাগত যোগ্যতা ও কর্মদক্ষতায় ইতি মধ্যে হয়েছেন তিনি ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র-০১।

রাজনীতির পাশাপাশি শিক্ষানুরাগী, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও বিভিন্ন সামাজিক এবং সংস্কৃতিক সংগঠন ব্যক্তি আব্দুল মান্নান পরান। তিনি একটা পরিকল্পিত ওয়ার্ড ও জনসাধারণের আলোকিত জীবন যাপনের উদ্যোগ নিয়ে পুনরায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে চান। ওই ওয়ার্ডে সন্ত্রাস, মাদক, ইভটিজিং এবং তাদের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের পরিহার করে অপরাধমুক্ত সমাজ গড়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই সোনার বাংলা গড়ার ভাগিদার হতে চান আব্দুল মান্নান পরান।

মঙ্গলবার (২৪নভেম্বর) ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় নিজ কার্যালয়ে এ প্রতিনিধির সঙ্গে আলাপকালে আব্দুল মান্নান পরান বলেন, সমাজের উন্নয়ন একজন যোগ্যতা সম্পন্ন ব্যক্তির উপর নির্ভর করে। একজন কাউন্সিলর থাকুক আর নাই থাকুক উন্নয়ন কর্মকান্ড সরকারের পক্ষে থেকে এটা সমসময় হয়। আমি সেই উন্নয়ন কর্মকান্ডগুলো পূর্ব অভিজ্ঞতা থেকে জনগণের জীবনের প্রতি নিজের দায়িত্ব রয়েছে। সেই চিন্তা চেতনাকে কাজে লাগিয়ে ইতি মধ্যে পৌরসভায় সুপেয় পানি সরবরাহ করতে আমার নিজ সম্পত্তি দিয়েছি জনগণের উন্নয়নের স্বার্থে। আমার নির্বানী এলাকায় সুপেয় পানির সমস্যা উল্লেখযোগ্য বাড়িগুলো রয়েছে। ইতি মধ্যে আমার নিজ তহবিল থেকে ৪০টি ডিপকল দিয়েছি। যা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে দৃশ্যমান।

এছাড়াও মাদক,ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস সহ অপারাধি কমকান্ড প্রতিরোধ, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন এ ওয়ার্ডের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি। যে সমস্থ অসুবিধা ও অসন্তুটির কারণ রয়েছে অতিদ্রুত সময় সেই সমস্যা সমাধান করতে চাই। আমি এই জন্য পুনরায় নির্বাচিত হতে চাই।

নতুন আঙ্গিকে এ ওয়ার্ডকে সাজাতে “সন্ত্রাসীদের পরিহার করি, সন্ত্রাস মুক্ত জীবন গড়ি” শ্লোগানে আব্দুল মান্নান পরান বলেন, আজকে তরুণ সমাজের মধ্যে মাদকাসক্তির কারন তারা মাদকের নেশায় বিভিন্ন সামাজিক অন্যায়, অবিচার, খুন-খারাপি এগুলোর সঙ্গে জড়িত। আমি এলাকাসীকে শান্তিপূর্ণ জীবন নিশ্চিত করার জন্য মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে চাই।

তিনি বলেন, মানুষের অনেকগুলি সমস্যা থাকে তারা ব্যক্তিগত ভাবে আমার কাছে এসে সমাধান চায়। আমি এই জায়গায় প্রতিটি এলাকায় একটা কমিটি করবো। যা হবে এলাকাভিত্তিক কমিটি। আমি সেই কমিটির মাধ্যমে স্থানীয় ভিত্তিক সমস্যার সমাধান করবো। এবং তাদের সেই সমস্যাগুলি চিহ্নিত করে পৌরসভার মাধ্যমে তার যে নিতিমালা এবং আইন আছে সে ভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

আমরা সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাসী, পাঠকের আস্থাই আমাদের মূলধন

আপডেট সময় : ০৮:২১ পিএম

২৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রি. ০৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি, মঙ্গলবার

 

You might like

অনুমতি ব্যতীত এই সাইটের কোনো সংবাদ, ছবি অন্য কোনো মাধ্যমে প্রকাশ আইনত দণ্ডনীয়