রাজাপুরে সরকারি ঘর পাওয়ার আশায় নিজের বসত ঘরে আগুন

মনির সাকী, ঝালকাঠি প্রতিনিধি :

ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলা পুটিয়াখালী গ্রামে লালমতি(৪০) এর বিরুদ্ধে নিজের বসত ঘরে অগ্নি সংযোগ করে অন্যের উপর দোষ চাপিয়ে সরকারি ঘর পাওয়ার প্রচেষ্টা করার অভিযোগ উঠেছে।

সম্প্রতি লালমতি(৪০) সরকারি ঘর পাওয়ার আশায় তার নিজের ঘরে অগ্নি সংযোগের মাধ্যমে ঘর প্রতিবেশী মাওঃ আঃ হক ওরফে এজাহর আকন এর নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে হয়রানি করছে।

এতে আদালত কর্তৃক পিপিআই বরিশাল-কে তদন্তভার দিলে তারা সঠিক তদন্ত আদালতে উপস্থাপন করছে, মামলাটি এখনো চলমান। এর আগে উক্ত লালমতি অবৈধভাবে প্রয়োগে মাওঃ আঃ হক (এজাহার) এর জমি জবর-দখলের চেষ্ঠা করে ও মুল্যবান এক খন্ড জমি দখল করে নেয়।

লালমতি’র কাঠ ব্যবসায়ী এক ছেলে আনোয়ার, ও টলি মালিক মেজ ছেলে আলতাফসহ লালমতির ভাই অবৈধ কারবারি চানু কারিকর, ও ইউনুচ কারিকর মিলে এলাকায় ত্রাসের সৃষ্টি করে রেখেছে। লালমতির ছেলে আনোয়ার কাঠ ব্যবসায়ী ও মেজ ছেলে আলতাফ মিনি ট্রাকের মালিক হওয়া স্বত্তে¡ও সে ভিক্ষার নাম করে আইনের অবৈধ সুযোগে নাজেহাল হয়ে পড়েছে কতিপয় পরিবার।

ইতিপূর্বে লালমতির ২৮ বছর বয়সী এক প্রতিবেশীর বাড়ীতে ভিক্ষা করতে গেলে ভিক্ষা না দেয়ায় তার জুতা চুরি করে বাড়ীতে এনে রাতে হঠাৎ উক্ত ব্যক্তির নাম ধরে চিৎকার করতে থাকে এবং বলতে থাকে যে, উক্ত ব্যক্তি তাকে ধর্ষন করার চেষ্ঠা করেছে বলে মিথ্যা অভিযোগ করতে থাকে। এতে অসহায় গরীব ছেলেটি গন্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে ধর্না দিতে থাকলে তারা তাকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা করে লালমতির কাছ থেকে রেহাই করে দেন।

এ বিষয়ে লালমতির এক প্রতিবেশীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি নাম না প্রকাশ করার শর্তে জানান লালমতির এখন পর্যন্ত ১৪টি বিয়ে হয়েছে কোন বিবাহই স্থায়ী হয়নি। সে বিভিন্ন ভাবে তার প্রতিবেশীদের হয়রানি করে,তার প্রতারনা থেকে বাঁচতে কেউ মুখ খুলতে চায়না।

লালমতির প্রতিবেশী মাওঃ আঃ হক (এজাহার) বর্তমানে অসুস্থ্য। তিনি জানান আমি ও আমার পরীবার লালমতি, তার ছেলে-মেয়ে ও ভাইদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। আমরা বিভিন্ন সময় তার বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নিলেও সে আইনের চোখে ধুলা দিয়ে সে ও তার সন্ত্রাসী ছেলে ও ভাইদের নেতৃত্বে আমাদেরকে ক্ষতি করতে লেগে থাকে। এবিষয়ে আমরা আইনের আশ্রয় প্রার্থনা করছি।

You might like