এই ধরনের শতবর্ষী বৃদ্ধাদের প্রতি একটু আলাদাভাবে দৃষ্টি দিন…

শত বছর বয়সী বিধবা বৃদ্ধা মরিয়মজান। বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বারান্দায় এভাবেই তাকে সরকারি কয়েক কেজি চাল পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায়। বৃদ্ধা মরিয়মজান জানান, দুই মেয়ে ছাড়া তার খোরাক জোগানোর জন্য পৃথিবীতে তেমন কেউই নেই। স্বাধীনতা যুদ্ধের পর থেকেই ভিক্ষাবৃত্তি করে আজও জীবন সংগ্রামে বেঁচে রয়েছেন।

দুই মেয়ে স্বামী পরিত্যক্তা হয়ে ঢাকাতে বিভিন্ন বাসাবাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। তিনি জানান ১২/১৩ বছর পূর্বে কালির চর এলাকায় নদী ভাঙ্গনের পর থেকেই তিনি চাঁদপুর শহরের মৈশাদী পালকান্দি এলাকার বাঘাবাড়ীতে কোনো রকম আশ্রয় খুঁজে নিয়েছেন।

অসহায় এই বিধবা বৃদ্ধা মরিয়মজান একটি সরকারি রিসিট হাতে নিয়ে এভাবেই তাকে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কয়েক কেজি চালের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায়। এসব অসহায় বৃদ্ধাদের ঘন্টার পর ঘন্টা দীর্ঘ অপেক্ষা করতে দেখে খুবই খারাপ লাগছে। তাই জেলা প্রশাসনের কাছে অনুরোধ এই ধরনের শতবর্ষী বৃদ্ধাদের প্রতি আপনারা একটু আলাদা ভাবে দৃষ্টি দিন।

সাংবাদিক কবির হোসেন মিজির ফেইসবুক ওয়াল থেকে সংগৃহিত

You might like