ফরিদগঞ্জে গরু চুরির হিড়িক

মো: মহিউদ্দিন,ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি : :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে সম্প্রতি গরু চুরির হিঁড়িক পড়েছে। চোরের দল অনেকটা বেশামাল হয়ে উঠেছে। সম্প্রতি পৌর এলাকার মধ্যে ও দক্ষিণ বেরোয়া থেকে দুটি গরু চুরি করে নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর ) দক্ষিণ কেরোয়া সর্দার বাড়ির মৃত শহিদের ছেলে কালু (৪০) এর একটি ষাড় প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা মূল্যমানের ওই রাতে নিয়ে যায়। অসহায় পরিবারটি গরুটি হারিয়ে নির্বাক ও নিঃস্ব হয়ে পড়ে। অতি কষ্টে লেবার দিয়ে যার সংসার চলছে। অপরদিকে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে মধ্যে কেরোয়ার মৃত আ. হালিমের ছেলে মো. রুহুল আমিনের একটি গাভী ৫০ হাজার টাকা মূল্যমানের চোরের দল চুরি করে নিয়ে যায়।

আরো পড়ুন : পাইলস রোগে করণীয়

এ বিষয়ে কালু ও রুহুল আমিন জানায়, আমরা অতি কষ্টে গরু লালন পালন করে আসছি। গরুগুলো হারিয়ে তারা নির্বাক হয়ে পড়ে। ধার দেনা করে গরু ক্রয় করে লাভের আশায় এখন মাথায় হাত পড়েছে। এখন আমাদের ধার দেনার উপায় হবে কি? এমন উত্তরের কোন ভাষা খোঁজে পাওয়া মুশকিল।

আরো পড়ুন : শ্বেতীর সাদা দাগ দূর করার উপায়

এ দিকে বড়ালী বড় বাড়ির আক্কাছ আলীর তার ফার্ম থেকে ঈদের পূর্বে একটি গরু চুরি হয়েছে জানিয়েছে। তখন প্রচুর গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। রাত জেগে পাহারা বসিয়েও কোন চুরি ঠেকানো যায়নি।

সম্প্রতি আইন শৃংখলার ব্যাপক অবনতি হতে শুরু করেছে। থানা হেড কোয়াটারের এক কিলোর মাথায় কালু ও রুহুল আমিনের গরু দু‘টি চুলি হওয়া খুবই দু:খ জনক। পুলিশের রাতের টহল টীম প্রশ্ন বিদ্য হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

আরো পড়ুন : একজিমা হলে কী করবেন?

এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদ হোসেনের বক্তব্য হচ্ছে, আমাদের টহল টীমতো কাজ করছে। তবে গত ২/৩দিন বৃষ্টির কারণে টহল টীম পুলিশ বেন থেকে বাহির হতে পারেনি। তো আমি পুলিশ পরিদর্শকদের এ বিষয়ে সর্তক করে দেবো। তাছাড়া চুরি হওয়া গরুর মালিক থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেবো।

আরো পড়ুন : মেহ প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের কার্যকরী সমাধানসমূহ

আরো পড়ুন : জেনে নিন দীর্ঘক্ষণ মিলনের ঔষধ

 

35 জন পড়েছেন

You might like