মেছতা দূর করবেন যেভাবে

ছোট ছোট বাদামি স্পটে ত্বকের অনেকটাই যখন ঢেকে যেতে থাকে। এরচেয়ে মন খারাপ খুব কম সময়েই হয় জীবনে।

অনেকেই আজকাল ত্বকের দাগ বা মেছতা কমাতে লেজার করার কথা চিন্তা করেন। কিন্তু লেজার করার পর সঠিক নিয়ম না মেনে চলার ফলে ত্বকের অবস্থা আগের চেয়েও অনেক খারাপ হয়ে যায়।

ত্বকে মেছতা হতে পারে এমন দাগ দেখা দিতে শুরু করলেই প্রয়োজন বাড়তি যত্ন। নিজে ঘরেই মেছতা থেকে মুক্তি পেতে যা করতে পারেন:

• টকদই মেছতা দূর করতে খুবই কার্যকরী। সপ্তাহে তিনদিন ত্বকে টক দই লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। টক দই মেছতা দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়িয়ে দেবে।


• লেবুর রসে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে। যা সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে ত্বককে রক্ষা করে। নিয়মিত লেবুর রস সামান্য পানির সঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন।

• অল্প আমন্ড অয়েল গরম করে ২ থেকে ৩ ফোঁটা নিয়ে মেছতার জায়গায় ম্যাসাজ করুন। ঘণ্টা খানেক রেখে ধুয়ে নিন।


• তেল গরম করে সারামুখে ম্যাসাজ করুন। যতক্ষণ না ত্বক তেল শুষে নেয় ততক্ষণ ম্যাসাজ করুন। এবার ঘণ্টাখানেক রেখে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন

• বাইরে বের হওয়ার ২০ মিনিট আগে ত্বকে সানস্ক্রিন লোশন লাগিয়ে বের হবেন। রোদে গেলে অবশ্যই ছাতা, মাস্ক ও সানগ্লাস ব্যবহার করুন।

যদি উপরোক্ত নিয়মে দীর্ঘস্থায়ী মেছতা দূর না হয় তাহলে যোগাযাগ করুন। এক থেকে দুই ডোজ ঔষধ সেবনে অবশ্যই মেছতা চলে যাবে।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : [email protected]

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মেহ-প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের প্রতিকার

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

130 জন পড়েছেন

You might like