জোর থাকলেই কি হতদরিদ্রদের সম্পত্তি দখল!

সম্পাদকীয়
দিনে দিনে বাড়ছে যেন অনৈতিকতা! আর অনৈতিকতার কারণেই অন্যায় কাজে মানুষ মানুষকে কষ্ট দিচ্ছে! এটা কোনো ধর্মীয় দৃষ্টিতে শোভনীয় নয় ও সমর্থন করে না। তবুও মানুষ নীতিবর্জিত এমন কাজ করেই চলেছে। তবে যারা ক্ষমতা রাখে তারাই মানুষের সাথে অন্যায় আচরণ করে বেশি। ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে অন্যের সম্পত্তি হরণ করা তাদের রক্তে মিশে যায় যেন।

প্রতিটি মানুষই সুখে থাকতে চায়। কিন্তু সেই সুখে থাকা যদি অন্যকে কষ্ট দিয়ে করা হয়, তাহলে সেটাকে প্রকৃত সুখ বলা যায় না। অথচ কিছু মানুষ অন্যের কষ্টার্জিত সম্পত্তি দখল করতে পারলেই হিরো বনে যায়!

প্রিয় সময়ে প্রকাশিত ‘ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক অসহায় হতদরিদ্রের সম্পত্তি দখলের অভিযোগ’ শিরোনামে সংবাদটিতে আমরা দেখেছি অসৎ আনন্দের বহিঃপ্রকাশ।

সমাজের কিছু মানুষ ‘জোর যার, মুল্লুক তার’ নীতিতে চলতে চায়। অর্থাৎ তাদের চতুর্মুখী ক্ষমতার কারণে হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে যায়। আর তারা জ্ঞানশূন্য আচরণে লিপ্ত হয়। এ জাতীয় মানুষ ধরাকে সরা জ্ঞান করে না। জোরপূর্বক সম্পত্তি দখল নতুন কোনো খবর নয়। প্রতিনিয়তই আমরা এমন ঘটনা শুনে থাকি। কেননা প্রতিনিয়ত জমি, বাড়ী, ফ্ল্যাট হতে কেউ না কেউ দখলচ্যূত হচ্ছেন। অর্থাৎ প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রায়ই অন্যের স্থাবর সম্পত্তি জোরপূর্বক বা চাতুরী পন্থায় দখল করে বা দখল করার চেষ্টা করে । এসব প্রভাবশালীরা যখন কাউকে নিজের চেয়ে দুর্বল দেখে তখন তার সম্পত্তি সুযোগ বুঝে দখলের চেষ্টা চালায়। অবশ্য ওদের সাথে তখন কিছু দালালও যুক্ত হয়। যেন তাকে বাঁচাতে পারে ও তার পক্ষে দাঁড়াতে পারে। আর জোরপূর্বক সম্পত্তি দখল বিষয়ে আমরা অনেক মামলাও হতে দেখি; যেন যুগের পর যুগও স্থায়ী হয়। তখন দুর্বল ব্যক্তি নিঃস্ব হয়ে যায়।

আমরা প্রকাশিত সংবাদ মাধ্যমে জানতে পেরেছি যে, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার রূপসা উত্তর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের দরিদ্র দিনমজুর দুলাল হোসেনের পৈত্রিক সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চলছে। তিনি বাদি হয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেড আদালতে রানি বেগম, ইমাম হোসেন ও অহিদ উল­াহ- এর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা আরো জেনেছি, অভিযোগকারী দুলাল বলেছেন প্রতিপক্ষ জোরপূর্বক তার সম্পত্তি দখল করে আছেন এবং বিভন্নভাবে ক্ষতিসাধনের চেষ্টাসহ প্রায়সময় হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে।

আমরা সংবাদ মাধ্যমে জেনেছি যে, দিনমজুর দুলাল হোসেন একজন হতদরিদ্র মানুষ। সেই সুযোগই তার ভূমি দখলের চেষ্টা করে আসছে বলে তিনি জিডিতে উল্লেখ করেন।

আমরা সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের বিষয়ে সমাজে অশান্তি প্রত্যাশা করি না। আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেন শান্তিতে দরিদ্র পরিবার বেঁচে থাকতে পারে এ বিষয়ে সুন্দর সমাধান করার জন্যে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে প্রত্যাশা করছি।

You might like