রূপগঞ্জে জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব, দু’পক্ষের সংঘর্ষে বসতবাড়িতে আগুন : অগ্নিদগ্ধসহ আহত ১০

নিজস্ব প্রতিনিধি :

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে একটি জমি নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় একটি বসতবাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এক নারী অগ্নিদগ্ধসহ উভয়পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার (২০ নভেম্বর) উপজেলার রূপগঞ্জ ইউনিয়নের ভক্তবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হারেজ, কালাম মিয়া, বিউটি আক্তারকে মুমূর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও ভক্ত বাড়ি এলাকার বাসিন্দা হাবিবুর রহমান হারেজ এর সঙ্গে একই এলাকার জমি ব্যবসায়ী জাহের আলীর পিতলগঞ্জ মৌজার একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। ওই জমিটি তারা দুজনই মালিক দাবি করেন। এ জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে এর আগেও বেশ কয়েকবার ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছিল।

সোমবার বিকেলে জাহের আলী জমিটি জোরপূর্বক মাপতে যায়। এ সময় হাবিবুর রহমান হারেজ জমি মাপতে বাধা প্রদান করেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মাঝে তর্ক-বিতর্ক ও বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে জাহের আলীর পক্ষটি রামদা চাপাতি চাইনিজ কুড়াল সহ বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হয়ে হাবিবুর রহমান হারেজের লোকজনের উপর হামলা করে। এ সময় হাবিবুর রহমান হারেজের লোকজনও পাল্টা হামলা করে। শুরু হয় দুই পক্ষের মাঝে ধাওয়া পাল্টা খাওয়া ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও সংঘর্ষ। এক পর্যায়ে একটি বসতঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় হামলাকারীরা। সংঘর্ষে রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হারেজ, কালাম মিয়া, বিউটি আক্তারসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহতদের মধ্যে বিউটি আক্তার অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম শায়েদ বলেন, ঘটনা সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। । বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে । উভয় পক্ষ থেকেই অভিযোগ দিলে মামলা নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।